তথ্য

সাইবার যুদ্ধ: বাংলাদেশ ব্লাকহ্যাট হ্যাকারের বক্তব্য

5views
সাইবার যুদ্ধ: বাংলাদেশ ব্লাকহ্যাট হ্যাকারের বক্তব্য

বাংলাদেশি হ্যাকারদের হাতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফসহ অসংখ্য ভারতীয় ওয়েবসাইট হ্যাক হওয়ার সূত্র ধরে এর পাল্টা বা প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে ভারতীয় হ্যাকাররাও বাংলাদেশি সরকারের বেশকিছু ওয়েবসাইটসহ অসংখ্য বাংলাদেশি ওয়েবসাইট হ্যাক করে। এর জের ধরে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের ধারায় চলতে থাকা বাংলাদেশ ভারতের হ্যাকারদের সাইবার যুদ্ধ ইতিমধ্যেই প্রায় আন্তর্জাতিক রূপ নিয়ে ফেলেছে।কারণ বাংলাদেশি হ্যাকারদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে বিশ্বের অন্যান্য দেশের কিছু হ্যাকার। এর মধ্যে বাংলাদেশি হ্যাকাররা বিশ্বের সবচেয়ে বড় হ্যাকার গ্রুপ অ্যানোনিমাসেরও সমর্থন পেয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় সাইটগুলোর ওপর আক্রমণের সূচনাকারী বাংলাদেশ ব্ল্যাক্যাট হ্যাকার (বিবিএইচএইচ) গ্রুপ।
(বিষয়টির সুরাহায় দু’দেশের সরকার বা দায়িত্বশীল সূত্র এ বিষয়ে এখনও কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছেন বলে জানা যায়নি। তবে সাইবার আক্রমণ থেকে নিজ নিজ দেশের সাইটগুলো বাঁচাতে তৎপর হয়ে উঠেছে বলে জানা গেছে। কিন্তু বাংলাদেশ-ভারত সাইবার হ্যাকারদের লড়াই য পর্যায়ে পৌঁছেছে তা যে কোনও সময়ে উভয় দেশের জন্যই বিপর্যয়কর কোনো পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে বলে সচেতন মহল মনে করছে। )

এদিকে, বর্তমান বাংলাদেশ ব্ল্যাকহ্যাট হ্যাকার্স বাংলানিউজকে তাদের অবস্থান ও কর্মকাণ্ডের ব্যাখ্যা দিয়ে একটি বিবৃতি পাঠিয়েছে। বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য এখানে তা পত্রস্থ করা হলো:   
আমরা বাংলাদেশ ব্লাকহ্যাট হ্যাকার। ভারতে সীমান্ত হত্যা বন্ধে আমরা সম্প্রতি ভারতীয় ওয়েবসাইটগুলোতে ব্যাপক আক্রমণ শুরু করেছি। আমাদের খারাপ কোনো উদ্দেশ্য নেই, আমরা সীমান্তে বিএসএফ এর হাতে মরতে চাই না। চাই মানুষের মতো বাঁচতে, বিএসএফ-এর কাছে কুত্তার মতো গুলি খেয়ে মরতে চাই না। সীমান্তে যাতে নিরীহ মানুষকে আর মরতে না হয় সে দাবিতে আমরা সাইবার যুদ্ধ শুরু করেছি।

আমরা ভারত সরকারের উদ্দেশ্যে একটি ভিডিও অবমুক্ত করেছি। এটি http://bit.ly/zI2QNZ ঠিকানা থেকে দেখে নিতে পারেন।
ভিডিওর বাংলা অনুবাদ (সাবটাইটেল): হ্যালো বাংলাদেশের নাগরিকরা, আমরা বাংলাদেশ ব্লাকহ্যাট হ্যাকারস। এখন সময় আমাদের চোখ খুলবার। বিএসএফ ১ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি নাগরিককে হত্যা করেছে, তাদের গুলিতে আহত হয়েছে আরও ৯৮৭ বাংলাদেশি। অপহৃত হয়েছে হাজারো মানুষ। এটি মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ। তারা অবিচার করছে। সংকটময় এ মুহূর্তে বাংলাদেশি নাগরিক হিসেবে আমাদের কিছু দায়িত্ববোধ রয়েছে, আমরা চাই ভারত সরকার নিরপরাধ বাংলাদেশিদের হত্যা করা বন্ধ করুক। নতুবা আমরা ভারতীয়দের বিরুদ্ধে সাইবার যুদ্ধ শুরু করবো। এটি চলতেই থাকবে।

Leave a Response